বড়াইগ্রামে গণধর্ষণ মামলার আসামী আটক

নাটোরের বড়াইগ্রামে এক নারীকে গণধর্ষণ মামলায় পলাতক প্রধান আসামী নয়ন হোসেন(২৮)কে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

রোববার (২৬ মে) রাত ৯টার দিকে উপজেলার খোদ্দকাছুটিয়া খেজুরতলা মোড় থেকে তাকে আটক করে।

সোমবার (২৭ মে) সকালে নাটোর র‌্যাব ক্যাম্প থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
আটককৃত আসামি নয়ন বড়াইগ্রাম উপজেলার একই এলাকার মো. রায়হানের ছেলে।

বড়াইগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ শফিউল আজম খাঁন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

র‌্যাব নাটোর-৫ এর প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ১৮ মে ভুক্তভোগী অভিমান করে নিজ বাড়ি থেকে ঢাকা যাওয়ার জন্য একটি বাসে উঠেন।পরে ঢাকা পৌঁছানোর পর ভুক্তভোগী তার ভুল বুঝতে পেরে পূণরায় বাড়ি ফেরার জন্য ওই বাসে উঠেন। এ সময় বাসে ২ নম্বর আসামি ফরিদুল (২৮)এর সাথে তার পরিচয় হয়। রাত ১১টার সে বাস থেকে বনপাড়া বাইপাস নামে। পরে ২ নম্বর আসামী তাকে বড়াইগ্রাম উপজেলার খোদ্দকাছুটিয়া এলাকার একটি ভুট্টাখেতের মধ্য নিয়ে যায়। সেখানে মামলার প্রধান আসামি নয়নসহ অন্য সহযোগী আসামিরা ওই নারীকে জোরপূর্বক পালাক্রমে ধর্ষণ করে ভুট্টাখেতে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে ১৯ মে বড়াইগ্রাম থানায় ভুক্তভোগী বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি গণধর্ষণ মামলা দায়ের করে। মামলার পর আসামিরা আত্মগোপনে চলে যায়।

র‌্যাব আরও জানান, মামলার তদন্তকারী অফিসার আসামীদের গ্রেফতারের জন্য সিপিসি-২, নাটোর র‌্যাব-৫ বরাবর অধিযাচনপত্র প্রদান করেন। পরে গোয়েন্দা তথ্য ও তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে ঘটনার সঙ্গে জড়িত আসামিদের অবস্থান শনাক্ত করে বড়াই গ্রাম উপজেলার খোদ্দকাছুটিয়া এলাকার খেজুরতলা মোড় থেকে মামলার পলাতক প্রধান আসামি নয়নকে গ্রেফতার করা হয়। পরে আসামিকে বড়াইগ্রাম থানায় হস্তান্তর করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *