রাজশাহীর বাগমারায় হাতিয়ার বিলে মাছের পোনা অবমুক্ত করা হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজশাহীর বাগমারায় হাতিয়ার বিলে নতুন করে বিভিন্ন প্রজাতির মাছের পোনা অবমুক্ত করা হয়েছে। আজ সমবার বেলা ১১ টায় নরদাশ ইউনিয়নের নরদাশ গ্রামের মো: মজিবর রহমানের নেতৃত্বে বিলের জমির মালিক গণ ঐক্যবদ্ধ হয়ে এই মাছের পোনা অবমুক্ত করেন।

হাতিয়ার বিলে প্রায় ১৬ বছর যাবৎ ধান চাষের পর মাছ চাষ করিয়া আসছেন বাগমারা উপজেলার ২ নং নরদাশ ইউনিয়নের ভূমি দস্যূ নামে আক্ষায়িত মো: রফিকুল ইসলাম।

৫ বছরের জন্য লীজের মাধ্যমে মাছ চাষ শুরু করা হলেও অদ্যবদী পর্যন্ত জোর করে দখল করে আছেন, নরদাশ গ্রামের রফিকুল ইসলাম, জুলফিকার আলী বাচ্চু, সেকেন্দার আলী, সুজন পালসা গ্রামের আব্দুল মতিন, আফজাল ও মজিবর রহমান সহ কয়েকজন প্রভাবশালী ব্যক্তি। বাড়ানো হয়নি কৃষকদের সুযোগ সুবিধা কিংবা জলাবদ্ধ জমির টাকার পরিমান। এ নিয়ে বিরোধ চলছে দীর্ঘ দিন যাবৎ কিন্তু কোন সমাধান পাননি জমির মালিক গণ।

বিষয়টি নিয়ে জমির মালিক গণের পক্ষে মো: মজিবর রহমান বাদী হয়ে প্রথমে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবং রাজশাহী জেলা পুলিশ কমিশনার বরাবরে লিখিত অভিযোগ করেও কোন লাভ হয়নি। রফিক বাহীনির অর্থ ও ক্ষমতার কাছে পারজিত হয়ে জমির মালিক গণ প্রায় তিন বছর যাবৎ প্রশাষনের দারে দারে ঘুরছেন।

অবশেষে নিজেদের অধিকার আদায় করে এলাকর বেকার যুবকদের কর্ম সংস্থান বৃদ্ধি এবং অর্থ নৈতিক ভাবে সাবলম্মি করে তোলার লক্ষে জমির মালিক গণ একতাবদ্ধ হয়ে তারা আজ মাছের পোনা অবমুক্ত করেন।

এ বিষয়ে কথা হলে মো: মজিবর রহমান বলেন, আমরা নিপিড়িত, নির্যাতিত। আমরা অধিকার বঞ্চিত, আমরা জমির মালিক কিন্তু আমাদের কাছথেকে বিলে মাছ চাষ করার জন্য আজ থেকে ১৬ বছর আগে নাম মাত্র সুবিধা দিয়ে একটি লীজপত্র লেখানো হয়েছিল। কিন্তু সেই লীজের মেয়াদ শেষ হলেও নতুন ভাবে কোন লীজ বা চুক্তি পত্র আজ পর্যন্ত করা হয়নি। কৃষকদের সুযোগ সুবিধা ও বাড়ানো হয়নি। এসব নিয়ে রফিকের সাথে কথা বলতে গেলে নানা ভাবে ভয়-ভিতী দেখানো, মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করে থাকে। এ পর্যন্ত এই বিল কে কেন্দ্র করে রফিক ও তার বাহিনী মিলে প্রায় ১৫ টি মিথ্যা মামলা করেছেন। তার কবলে পড়ে নিস্ব হয়েছে অনেক পরিবার।

এ বিষয়ে কথা বলার জন্য মো: রফিকুল ইসলামের মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তার ফোনটি বন্ধ থাকার কারনে তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

হাতিয়ার বিলে নতুন ভাবে মাছের পোনা অবমুক্ত করার সময় অন্যানদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, মো: মমতাজ হোসেন, মোবারক হোসেন, প্রভাষক আ: মজিদ, মো: আ: মতিন, মো: আ: রশিদ, মো: শাকিম, মো: দলিল উদ্দীন, মো: মাইনুল ইসলাম, মো: আ: বাকি, মো: শহিন আলম, বাইগাছা গ্রামের আলতাফ হোসেন, সুজন পলশা গ্রামের রফিকুল ইসলাম, হাটমাধনগরের আবুল কালাম, মুরাদ, সাদ্দাম ,মাসুদ রানা সহ এলাকার জোত ভূমির মালিক গণ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *