বাগেরহাটে বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট গভীর নিম্নচাপের প্রভাব পড়তে শুরু করেছে 

বাগেরহাট প্রতিনিধিঃ

 

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট গভীর নিম্নচাপের প্রভাব পড়তে শুরু করেছে উপকুলীয় জেলা বাগেরহাটে। সকাল থেকেই জেলা শহর থেকে শুরু করে সব উপজেলায় গুড়ি-গুড়ি বৃষ্টি হচ্ছে। সময় বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এই বৃষ্টি ও বাতাসের গতি বাড়বে এবং নিম্নচাপটি রবিবার (২৩ অক্টোবর) মধ্যরাতেই ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ে রূপ নেবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত নিম্নচাপটি আরও সামান্য উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর ও ঘণীভূত হয়েছে। এটি এখন গভীর নিম্নচাপ আকারে একই এলাকায় অবস্থান করছে। নিম্নচাপটি মোংলা সমদ্র বন্দর থেকে ৭৭৫ কিলোমিটার দক্ষিণে রয়েছে। যার ফলে মোংলা সমদ্রবন্দকে তিন নম্বর সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। তবে মোংলা বন্দরের পণ্য খালাস ও বোঝাই স্বাভাবিক রয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সকাল থেকে মোংলা, শরণখোলা, মোরেলগঞ্জ, কচুয়া, রামপালসহ সব উপজেলায়ই গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি হচ্ছে। কোথাও কোথাও ভাড়ি বৃষ্টির খবরও পাওয়া গেছে। বৃষ্টির কারণে মোংলা, মোরেলগঞ্জ ও শরণখোলায় ফেরি-খেয়াঘাট পারাপারে ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারণ মানুষ।

এখন পর্যন্ত বন্দরের সকল কার্যক্রম স্বাভাবিক রয়েছে বলে জানিয়েছেন মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের হারবার মাস্টার ক্যাপ্টেন শাহীন মজিদ।

তিনি বলেন, আবহওয়া অধিদপ্তরের সিগনাল বৃদ্ধি ও পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। রোববার (২৩ অক্টোবর) সকাল ৬টা পর্যন্ত বন্দরে ১৪টি বাণিজ্যিক জাহাজ ছিল। সবগুলোর কার্যক্রম স্বাভাবিক রয়েছে।

মোংলা আবহাওয়া অফিসের পর্যবেক্ষক শিহাব কবির বলেন, নিম্নচাপের প্রভাবে সকাল থেকে সূর্য উঠে নেই। সকাল থেকে হালকা বৃষ্টি হচ্ছে। ২৪ ও ২৫ অক্টোবর সকাল থেকে মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। নিম্নচাপের ফলে নদীতে স্বাভাবিকের চেয়ে দুই থেকে তিন ফুট পানি বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *