সিংগাইরে কমিশনার কে জিজ্ঞাসাবাদের নামে হয়রানির জেরে ওসির অপসারণের দাবীতে বিক্ষোভ সমাবেশ

সাইফুলইসলাম সিংগাইর

পৌরসভা সূত্রে জানা গেছে , সিংগাইর পৌর এলাকার ৪ নম্বর ওয়ার্ডে নিউ মার্কেটের পূর্বপাশে ইমু সুলতানা নামে এক সরকারী চাকরিজীবি মনোরঞ্জন ঘোষের কাছ থেকে আট শতাংশ জমি ক্রয় করেন। ঐ জমিতে গত ২ নভেম্বর সরকারি রাস্তার দখল করে বাউন্ডারি নির্মাণ করেন। পৌর মেয়র বিষয়টি আবগত হলে কাউন্সিলর রিয়াজুল ইসলামকে ঘটনাস্থলে পাঠান। ঘটনা স্থলে গিয়ে বাউন্ডারি করতে নিষেধ করেন। জমির মালিক ইমু সুলতানা ক্ষিপ্ত হয়ে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। এ অভিযোগে সোমবার বিকালে অভিযুক্ত কাউন্সিলর রিয়াজুল ইসলামকে জিজ্ঞেসাবাদের নামে থানায় ডেকে কয়েক ঘন্টা বসিয়ে রাখেন।

এর পর , পৌর মেয়রকেও ডাকেন ওসি। মেয়র থানায় আসলে এ বিষয়টি নিয়ে উভয়ই আলোচনা শুরু করেন। আলোচনা কালেন পৌর মেয়র সাথে অসদাচরণ করেন ওসি। এ খবর টি মুহূর্তের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে। ঐ কাউন্সিলর ও পৌর মেয়রের সাথে অসদাচরণ করার জের ধরে বিকেলে হাইস্কুলের মাঠে পৌর কাউন্সিলস উপজেলা আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগীসংগঠমের নেতাকর্মীরা ওসির অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেন।

পৌর মেয়র আবু নাঈম মো. বাশার বলেন, ‘আমার কাউন্সিলেরর সাথে ওসি খারাপ আচরণ করায় আমি প্রতিবাদ করি। এ সময় কথা কাটাকাটি হয়। বিষয়টি জানাজানি হলে কাউন্সিলরা বিক্ষোভ করে

এব্যাপারে এএসপি (সিংগাইর সার্কেল) আব্দুল্লাহ আল ইমরান বলেন, ‘একজন কাউন্সিলরকে থানায় ডেকে আনায় ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয়েছিল সেটা সমাধান হয়েছে। অন্য কিছু নয়।’ ৮/১১/২০২২

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *