জেলা ছাত্রলীগের পদ বঞ্চিতদের হামলায়  গাবতলী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি পান্না       আহত হাসপাতালে ভর্তি নেতৃবৃন্দ’র নিন্দা

স্টাফ রিপোর্টার:

বগুড়ার গাবতলী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান পান্না জেলা ছাত্রলীগের পদ বঞ্চিত বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীদের হামলায় গুরুতর আহত হয়ে বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছে। ৮ই নভেম্বর মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টায় শহরের সাতমাথা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। একাধিকসূত্র জানায়, আজ মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান পান্নার নেতৃত্বে জেলা ছাত্রলীগের নব গঠিত কমিটিকে স্বাগত জানিয়ে আনন্দ মিছিল করে এবং দুপুরে নেতাকর্মীদের মাঝে মিষ্টি বিতরণ করেন। পরে সন্ধ্যায় উপজেলা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী নিয়ে সাতমাথায় যান। এ সময় জেলা ছাত্রলীগের পদ বঞ্চিত বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীদের মারপিটে গাবতলী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান পান্না গুরুতর আহত হন। তাকে উদ্ধার করে বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আহত পান্নার মাথায় কয়েকটি সেলাই দেয়া হয়েছে বলে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা জানিয়েছেন। এ ন্যাক্কার জনক ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বিবৃতি দিয়েছেন গাবতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোস্তফা আব্দুর রাজ্জাক মিলু, সাধারণ সম্পাদক এ আই ফয়সাল খান জনি।

এদিকে হামলার খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক হাসপাতালে ছুটে যান গাবতলী উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম মুক্তা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ এ আই ফয়সাল খান জনি, আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল গফুর মন্ডল, মিজানুর রহমান মিজান, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আজিজার রহমান পাইকার, নেপালতলী ইউপি চেয়ারম্যান শহীদুল ইসলাম বাবুসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *