তাড়া‌শে প্রেমের প্রস্তাব দেওয়ার অপরা‌ধে মারপি‌টে যুবক আহত।

সাব্বির মির্জা স্টাফ রিপোর্টার
সিরাজগঞ্জের তাড়া‌শে প্রেমের প্রস্তাব দেওয়ার অপরা‌ধে মোঃ স্বাধীন আলী (২২) কে ফো‌নে বাসায় ডে‌কে নি‌য়ে বেধরক মারপি‌ট ক‌রে মারাত্মক আহত করার অ‌ভি‌যোগ পাওয়া গে‌ছে মো. জালাল উ‌দ্দি‌ন এর বিরুদ্বে । 
ঘটনা‌টি  ঘ‌টে‌ছে বৃহস্প‌তিবার রাত সা‌ড়ে ১০ টায় তাড়াশ পৌর এলাকার দ‌ক্ষিণ পাড়ায়। 
এ ঘটনায় শ‌নিবার দুপু‌রে তাড়াশ থানায় মোঃ স্বাধীন আলীর বাবা মোঃ  সবুজ আলী (৪৫) বাদী হ‌য়ে এক‌টি অ‌ভি‌যোগ পত্র দা‌খিল ক‌রে‌ছেন। অ‌ভি‌যো‌গের বিষয়‌টি তাড়াশ থানার ও‌সি মো. শ‌হিদুল ইসলাম নি‌শ্চিত ক‌রে‌ছেন।
অ‌ভি‌যোগ সু‌ত্রে জানা গে‌ছে, গত বৃহস্প‌তিবার রাত স‌ে‌ড়ে ১০ চার দি‌কে উপ‌জেলা সগওনা গ্রা‌মের মো. সবুজ আলীর ছে‌লে মো. স্বাধীন আলী‌কে তাড়াশ পৌর এলাকার দ‌ক্ষিণ পাড়ায় ভ্ড়া  বাসায় বসবাসরত মো. জালাল উ‌দ্দি‌নের মে‌য়ে মোছাঃ পৌষি (১৮) ফো‌নে স্বাধীন আলী‌কে বাসায় আস‌তে ব‌লেন।  স্বাধীন আলী‌ পৌ‌ষির কথা ম‌তো বাসায় অ‌াসলে স্বাধীন আলী‌কে বাসায় আট‌কে রে‌খে রাতভর পৌ‌ষির বাবা, মা ও ভাই লোহার রড দি‌য়ে বেধরক মার‌পিট ও শারী‌রিক র্নিযাতন ক‌রে মারাত্মক আহত ক‌রেন। এ সময় তার কা‌ছে থাকা মোবাইল, মানিব্যাগ, আইডি কার্ড, টাকা ছি‌নি‌য়ে নেয়। এছাড়াও  তানা স্বাধীন আলী‌কে মারপিট ও প্রাণ না‌শের হুমকী দি‌য়ে  সে বাসায় মোবাইল ফোন চু‌রি কর‌তে এ‌সে‌ছে ম‌র্মে স্বীকার উ‌ক্তি ফো‌নে ধারণ ক‌রেন।
এক পর্যায় স্বাধীন আলী‌র অবস্থা খারাপ হ‌লে তা‌কে সংগাহীন অবস্থায় ভোর সা‌ড়ে ৪ টার দি‌কে রাস্তায় ফে‌লে যায়। এ সময় ফজ‌রের নামাজ পড়‌তে আসা লোকজন দেখ‌তে পে‌য়ে স্বাধীন আলী‌র স্বজনদের খবর ‌দেয়। তার স্বাধীন আলী‌কে উদ্ধার ক‌রে তাড়াশ ৫০ শয‌্যা বিশিষ্ট স্বাস্থ‌্য কম‌প্লে‌ক্সে ভ‌র্তি ক‌রেন। সেখা‌নে তার অবস্থা আশংকাজনক হ‌লে তা‌তে উন্নত চি‌কিৎসার জন‌্য সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয‌্যা এম মুনসুর আলী মে‌ডি‌কেল ক‌লেজ হাসপাতা‌লে ভ‌র্তি করা হ‌য়ে‌ছে।
এ‌দি‌কে এ ঘটনায় স্বাধীন আলী‌র বাবা  সবুজ আলী গতকাল দুপু‌রে তাড়াশ থানায় মোছাঃ পৌষি, তার বাবা মোঃ জালাল উদ্দিন, মা মোছাঃ পপি খাতুন ও ভাই মোঃ রাগিব ইশরাকুল প্রাচ্যকে আসামী ক‌রে এক‌টি অ‌ভি‌যোগ দেন। 
 এ  ব‌্যাপা‌রে পৌ‌ষির বাবা জালাল উ‌দ্দিনের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করতে চাইলে তার ফোন বন্ধ পাওযায়।
এ প্রস‌ঙ্গে তাড়াশ থানার ও‌সি (তদন্ত) নূ‌রে আলম ব‌লেন, অভি‌যো‌গের বিষয়টি তদন্ত ক‌রে ব‌্যবস্থা নেয়া হ‌বে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *