আলোচিত হত্যা মামলার ন্যায় বিচারের অপেক্ষায় দিন গুনছে স্বজনরা।

আনোয়ার হোসেন আরিফ, কুড়িগ্রামঃ
কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলার পাইকের ছড়া ইউনিয়নের বেলদহ গ্রামের চার মাথায় দিবালোকে প্রকাশ্যে গলা কেটে হত্যা করা হয় উপজেলা কৃষক ফেডারেশনের সভাপতি ও ভূমিহীন নেতা আব্দুল করিম কে। আলোচিত হত্যা মামলার ন্যায় বিচারের অপেক্ষায় দিন গুনছে স্বজন হারানো পরিবার টি।

মামলা সুত্রে জানা যায়, কুড়িগ্রাম জেলার ভূরুঙ্গামারী উপজেলার পাইকের ছড়া ইউনিয়নের বেলদহ গ্রামের চার মাথায় গত ২০১২ সালের (৬ অক্টোবর) সকালে উপজেলা কৃষক ফেডারেশনের সভাপতি ও ভূমিহীন নেতা আব্দুল করিমকে দিবালোকে প্রকাশ্যে সন্ত্রাসীরা গলা কেটে হত্যা করে।

ঐ ঘটনায় নিহতের ছেলে হানিফুর রহমান ভুট্টু বাদী হয়ে ঐ দিনই ১১ জনের বিরুদ্ধে ভূরুঙ্গামারী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং জি আর ১৪০/২০১২। বর্তমান মামলা টি বিচারাধীন রয়েছে। নিহতের পরিবার জানায়, মামলার ১ নং আসামী জামিনে বের হওয়ার পর মারা গেলেও বাকী আসামিরা এখন জামিনে রয়েছে।

একটি কুচক্রী মহল প্রকাশ্যে হুমকি দিয়ে বলে মাটি দেওয়ার জন্য আব্দুল করিমের লাশ খুঁজে পেয়েছে কিন্তু পরিবারের অন্যান্য সদস্যেদের লাশও খুঁজে পাবে না। নিহতের স্ত্রী লাইলী বেগম ও তার দুই ছেলে লাভলু মিয়া ও ভুট্টু মিয়া জানায়, আমরা নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছি, হত্যা কারীদের বিচার আমরা নিজের চোখে দেখে যেতে চাই তাই দ্রুত সময়ের মধ্যে এই মামলার ন্যায় বিচার দাবি করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *