তাড়াশে ধর্ষণ ও নারীর নির্যাতনের  অভিযোগ মামলা। 

সাব্বির মির্জা স্টাফ রিপোর্টার

তাড়াশ প্রতিনিধি : সিরাজগঞ্জের তাড়াশে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের  অভিযোগে সিরাজগঞ্জ  নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের  মামলা করেছে এক ভুক্তভোগী  নারী।
ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার মাধাইনগর ইউনিয়নের ওয়াশিন গ্রামে।
 ভুক্তভোগী ফিরোজা বেগম (৪৫) ওয়াশিন গ্রামের আব্দুল জব্বারের স্ত্রী। মামলা আসামি করা হয়েছে উপজেলা মাধাইনগড় ইউনিয়নের ওয়াশিন গ্রামের মাহাবুব রহমানের ছেলে এনামুল হক বিরুদ্ধে।
মামলা সূত্রে জানা যায়, গত মাসের ৭ তারিখে ভুক্তভোগী রোজিনার স্বামী  চায়ের দোকানে চা বিক্রি করছিলেন সেই সুযোগে লম্পট এনামুল হক বাড়িতে ঢুকে  ভুক্তভোগী রোজিনাকে  একা পেয়ে   পিছন  থেকে এসে জাপটে ধরে ধর্ষণের চেষ্টা করে এ সময় রোজিনের আত্মচিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসলে লম্পট এনামুল হক পালিয়ে যায় এ ঘটনা জানাজানি হলে  গ্রামের লোকজনের কাছে  বিচার প্রার্থনা করে ভুক্তভোগীর পরিবার।  লম্পট এনামুলের পরিবার  প্রভাবশালী হওয়ায় গ্রামের লোকজন বিচার দিতে অপারগতা প্রকাশ করে। ফলে  বিচারের আশায় তারা বাধ্য হয়ে  থানায় বিচার প্রার্থনা করি । বিষয়টি নিয়ে থানা  গরিমষি  শুরু করলে বাধ্য হয়ে সিরাজগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচার প্রার্থনা করি।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়,এর আগে একাধিক মেয়ের সাথে খারাপ আচরণ করেছে লম্পট এনামুল হক।
এ বিষয়ে তাড়াশ থানার ওসি শহিদুল ইসলাম জানান, বিজ্ঞ আদালতের নির্দেশক্রমে সঠিক তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *