সিরাজগঞ্জে চাঞ্চল্যকর বেলাল হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন, গ্রেপ্তার ২

সাব্বির মির্জা স্টাফ রিপোর্টার

সিরাজগঞ্জের উলল্লাপাড়া উপজেলার চাঞ্চল্যকর বেলাল হোসেন হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন করেছে ডিবি পুলিশ। জমিজমা সংক্রান্ত ঘটনায় তাকে হত্যা করা হয়েছে। এ হত্যাকাণ্ডে জড়িত ২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

তারা হলো, ওই উপজেলার নেওয়ার গাছা গ্রামের গার্মেন্টসকর্মী নজির আলী (৩৭) ও যুবক আলমাছ (৩২)। ডিবি পুলিশের ইন্সপেক্টর খোকন চন্দ্র সরকার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

 উক্ত নেওয়ার গাছা গ্রামের মৃত জয়নাল আবেদীনের ছেলে বেলাল হোসেন (৫০) কে ২০২০ সালের ২০ নভেম্বর রাতে করোতয়া নদীর পশ্চিম পাড় এলাকায় র্দুবৃত্তরা তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে মারপিট ও কুপিয়ে ফেলে রাখে। স্থানীয়রা তাকে জখম অবস্থায় ওই রাতেই উদ্ধার করে বগুড়ায় শহীদ জিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।

পরে সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা সরোয়ারর্দী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২২ নভেম্বর গভীর রাতে মারা যায় বেলাল হোসেন। ঢাকা থেকে বেলাল হোসেনের লাশ নিজ গ্রামের বাড়ী উল্লাপাড়ায় আনা হয় এবং বিষয়টি উল্লাপাড়া মডেলে থানা পুলিশকে অবহিত করে। ওইদিন পুলিশ তার লাশ ময়না তদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

এ ব্যাপারে নিহতের ভাই পিপলু হোসেন বাদী হয়ে সংশ্লিষ্ট থানায় হত্যা মামলা দায়ের করে। পরিবর্ততে মামলাটির কোন ক্লু খুজে না পাওয়ায় উর্ধতন কতৃপক্ষের নির্দেশে এ মামলা জেলা গোয়েন্দা বিভাগে (ডিবি) হস্তান্তর করা হয়। ডিবি পুলিশের একটি চৌকষ টীম তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় অভিযুক্তদের নেওয়ার গাছা গ্রামে অভিযান চালিয়ে শুক্রবার রাতে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়।

জমিজমা সংক্রান্ত ঘটনায় তাকে খুন করা হয়েছে মর্মে আসামি নজির আলী বিজ্ঞ আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয় এবং এ ঘটনায় আরো কয়েক জন জড়িত রয়েছে বলে জবানবন্দিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *