বাঁশখালী উপজেলা পরিষদের সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান, চট্রগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের সাবেক কারা পরিদর্শক, মুক্তিযোদ্ধা কন্যা রেহেনা আক্তার কাজমী।

মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম চট্টগ্রাম বাঁশখালী প্রতিনিধি।

গরীব-মেহনতী মানুষের জনদরদী হিসেবে পরিচিত, পরোপকারী, ন্যায়পরায়ণ গুণাবলীর অধিকারী রেহেনা কাজমী। যিনি গেল ৫টি বছর বাঁশখালী উপজেলার মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান হিসেবে জনগণের কাতারে থেকে নিরলসভাবে জনকল্যাণমূলক কাজের সঙ্গে ব্যাপকভাবে সম্পৃক্ত থেকে মানুষের সেবায় কাজ করে আসায় ব্যাপক পরিচিতি লাভ করেন। যার কারণে সাধারণ মানুষের কল্যাণে একজন সদা নিবেদিত প্রাণ হিসেবে জনপ্রিয়তার শীর্ষস্থান দখল করে নিয়েছেন। গত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর দাপ্তরিকভাবে জনসাধারণের সেবা করার পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক, ধর্মীয়, সাংস্কৃতিক, খেলাধুলা ও সমাজ সেবামূলক কর্মকান্ডে নিজেকে সম্পৃক্ত রেখে এসেছেন।
এছাড়া সর্বদলীয় মানুষের সুখে-দুঃখে তাদের পাশে দাঁড়িয়ে গ্রহণ করেছিলেন প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ। ধর্ম-বর্ণের বৃত্তের বাইরে গিয়ে, নানা জনহিতকর কাজ করার মহান শিক্ষা অর্জনের মধ্যদিয়ে নিজেকে একজন অপ্রতিদ্বন্দ্বি নারী নেত্রী হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলেছেন। বিগত ৫ বছর এ পদে দায়িত্বে থেকে সততা ও নিষ্টার সাথে অবহেলিত এলাকার সমস্যা দূরীকরণ ও সাধারণ মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে কাজ করে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন।

তিনি আজ অন্যতম সংগঠক, নারী সমাজের রোল মডেল। দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নারীর ক্ষমতায়নে বিশ্বের রোল মডেল হয়ে উঠেছে বাংলাদেশ। রাজনৈতিক, সামাজিক ও অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে নারীর ক্ষমতায়নে বাংলাদেশের অগ্রগতি বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে। ঘরে বাইরে, রাষ্ট্রীয় কর্মকাণ্ডে সর্বত্রই নারীর অংশগ্রহণ বেড়েছে। এখন গ্রামাঞ্চলেও নারী আর তুচ্ছ তাচ্ছিল্যের পর্যায়ে নেই। দেশের অর্ধেকই নারী। এই নারীরা স্বনির্ভর হয়ে উঠায় দেশও হয়ে উঠছে স্বাবলম্বী এবং দেশের অর্থনীতি হচ্ছে মজবুত। আর যাদের নিরলস ও সাহসী ভূমিকা বাংলাদেশের নারীরা জেগে উঠছে তাদেরই একজন রেহেনা কাজমী। বাঁশখালী উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্টাতা সভাপতি রেহেনা কাজমী। অত্র উপজেলার পথে প্রান্তরে দিন রাত ছুটে বেড়িয়েছেন নারীদের সংগঠিত করতে। তার সদালাপী বিনয়ী ব্যবহার ও বলিষ্ঠ নেতৃত্বে বাঁশখালীর নারীরা আজ উজ্জীবিত ও সুসংগঠিত। জননন্দিত এই নেত্রী বাঁশখালীর সকলের কাছে তাঁর অসাধারণ কর্মদক্ষতার জন্য ও নজরকারা ভূমিকার অত্যন্ত প্রসংশিত।

আপনার হৃদয়ে ধারণ করা সমস্ত স্বপ্ন বাস্তবায়িত হোক। এছাড়াও জীবনের প্রতিটি দিন আপনার জন্য সেরা বয়ে আনুক। অনেক অনেক শুভকামনা আপা।
লেখক: এস এম ওবাইদুল ইসলাম চৌধুরী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *