ফেনী’র সোনাগাজী এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে বিভিন্ন ট্রাক, মিনি ট্রাক ও সিএনজি থেকে অবৈধভাবে চাঁদা আদায়কালে ০২ জন মূলহোতা সহ মোট ০৮ জন চাঁদাবাজকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম।

মোহাম্মদ নিজাম

“বাংলাদেশ আমার অহংকার”এই স্লোগান নিয়ে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে বিভিন্ন ধরণের অপরাধীদের গ্রেফতারের ক্ষেত্রে জোরালো ভূমিকা পালন করে আসছে। র‌্যাব সৃষ্টিকাল থেকে সমাজের বিভিন্ন অপরাধ এর উৎস উদঘাটন, অপরাধীদের গ্রেফতার সহ আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির সার্বিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে চলেছে। র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম অস্ত্রধারী সস্ত্রাসী, ডাকাত, ধর্ষক, দুর্ধর্ষ চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসী, খুনি, ছিনতাইকারী, অপহরণকারী ও প্রতারকদের গ্রেফতার এবং বিপুল পরিমাণ অবৈধ অস্ত্র, গোলাবারুদ ও মাদক উদ্ধারের ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করায় সাধারণ জনগণের মনে আস্থা ও বিশ্বাস অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।
সাম্প্রতিক সময়ে অধিনায়ক, র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম বরাবর এই মর্মে কিছু অভিযোগ গৃহীত হয় যে, র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম এর আওতাধীন ফেনী, রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি এবং চট্টগ্রাম মহানগরী সহ উক্ত জেলাসমূহের বিভিন্ন স্থানে অবৈধভাবে চাঁদা উত্তোলন করা হচ্ছে। বিশেষ করে চাঁদাবাজির শিকার হচ্ছে পণ্যবাহী ট্রাক, মিনি ট্রাক ও সিএনজিচালিত অটোরিক্সা। এছাড়াও বিভিন্ন সময় আরও কিছু চাঁদাবাজির অভিযোগ র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম কর্তৃক গৃহীত হয়।
র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, ফেনী জেলার সোনাগাজী থানাধীন ডাক বাংলো কলেজ রোড এবং জিরো পয়েন্ট সাকিনস্থ এলাকায় কতিপয় চাঁদাবাজ বিভিন্ন পরিবহন চালকদের নিকট হতে অবৈধভাবে চাঁদা আদায় করছে। উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম এর একটি আভিযানিক দল গত ০৮ জুন ২০২৪ ইং তারিখ আনুমানিক ১৬১০ ঘটিকায় বর্ণিত এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে আসামি ১। ১ম মূলহোতা মোঃ জসিম উদ্দিন (৩০), পিতা-মৃত আব্দুর রহমান, সাং-উত্তর চর চান্দিনা, ২। একেএম মাইনুল হক চৌধুরী মাঈনুদ্দীন (৩৭), ৩। এ কে এম মোফাজ্জল হক চৌধুরী(৪৮), উভয় পিতা-মৃত ফজলুল হক চৌধুরী, উভয় সাং-চর গনেশ, ৪। মোঃ শহিদুল ইসলাম (৩৪), পিতা-মোঃ হাবিবুল্লাহ, সাং-পূর্ব চর গনেশ, ৫। নুর করিম (২৭), পিতা- মৃত সিদ্দিক আহম্মদ, সাং- তুলাতুলী, ৬। সিরাজুল ইসলাম (৪২), পিতা-মৃত আব্দুস সালাম, সাং-পূর্ব সুজাপুর, ৭। ২য় মূলহোতা মোঃ এমরান হোসেন (৩৬), পিতা- আব্দুস শুক্কুর, সাং- মির্জাপুর, এবং ৮। রবিঊল হক (২৯), পিতা- করিমুল হক, সাং-রামচন্দ্রপুর, সর্ব থানা- সোনাগাজী ও জেলা-ফেনী’দের আটক করতে সক্ষম হয়। পরবর্তীতে উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদ ও দেহ তল্লাশী করে তাদের নিজ হাতে বের করে দেয়া মতে বিভিন্ন গাড়ী হতে আদায়কৃত নগদ ৪৯,৮০৫ টাকা এবং বিভিন্ন নামে-বেনামে কাটা মিথ্যা রশিদ উদ্ধার সহ আসামিদেরকে গ্রেফতার করা হয়।
গ্রেফতারকৃত আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানা যায়, তারা পরস্পর যোগসাজশে দীর্ঘদিন যাবৎ ফেনী জেলার সোনাগাজী থানাধীন ডাকবাংলো কলেজ রোডস্থ এবং জিরো পয়েন্ট সাকিনস্থ এলাকায় বিভিন্ন পরিবহন চালকদের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে জোরপূর্বক অবৈধভাবে নামে বে-নামে মিথ্যা রশিদ অথবা কখনো কৌশলে বিভিন্ন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের নাম ব্যবহার করে বিপুল পরিমান অর্থ চাঁদাবাজি করে আসছিল।
গ্রেফতারকৃত আসামিদের সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে তাদেরকে ফেনী জেলার সোনাগাজী থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *