রাজশাহীর বাঘায় বিএনপির ১৫০ জন নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে নাশকতার মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ রাজশাহীর বাঘায় ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি সহ ১৫০ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে নাশকতার পরিকল্পনার অভিযোগে বিশেষ ক্ষমতা আইনে বাঘা থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। উপ-পরিদর্শক(এসআই) শাহরিয়ার নাসিম বাদি হয়ে শনিবার (১৯ নভেম্বর) রাতে মামলাটি রজু করেছেন। থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাজ্জাদ হোসেন জানান, মামলায় প্রধান আসামি করা হয়েছে, পাকুড়িয়া ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি দস্তুল হোসেনকে। এছাড়া এজাহারে কয়েকজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামাদের আসামি করা হয়েছে।

ওসি আরো জানান, শনিবার (১৯ নভেম্বর) রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারেন, উপজেলার পাকুড়িয়া ইউনিয়নের বিএনপির নেতা-কর্মীরা কেশবপুর স্কুল ও কলেজ মাঠে সংঘবদ্ধ হয়ে নাশকতার পরিকল্পনা করছে। রাত ১০টার দিকে সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে সেখানে উপস্থিত হন। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বিএনপির নেতাকর্মীরা বোমা ও ককটেল ফুটিয়ে চলে যান। পরে ঘটনাস্থল থেকে অবিস্ফোরিত ৪টি ককটেল ও ৬০/৭০ টি বাঁেশর লাঠি উদ্ধার করেন।

উদ্ধার করা ককটেল ও বাঁশের লাঠির ছবি নিতে চাইলে তিনি বলেন, ককটেলগুলো মালখানায় রাখা আছে। পরে লাঠির ছবি চেয়েও পাওয়া যায়নি।

উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক ফকরুল হাসান বাবলু বলেন, আগামী ৩ ডিসেম্বর রাজশাহীর বিভাগীয় মহাসমাবেশ উপলক্ষে শনিবার(১৯ নভেম্বর) মাগরিব নামাজের পর তার বাসার ভেতরে দলীয় নেতা কর্মীদের নিয়ে মিটিং করছিলেন। সেখানে শতাধিক নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন। তার দাবি, আধা ঘন্টার মধ্যেই মিটিং শেষ করেছেন। কোন নেতা কর্মী কেশবপুর স্কুল ও কলেজ মাঠেও যাননি। রাজশাহীর সমাবেশ কেন্দ্র করে আতঙ্ক ছড়াতে সাজানো ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *