রৌমারীর প্রথম নারী ব্যারিস্টার মৌসুমী আক্তার রঞ্জিনা সবার কাছে দোয়া চান

 

শাহ মোঃ আব্দুল মোমেন,

রৌমারী(কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধিঃ

উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত মৌসুমী আক্তার

রন্জিনা আইন শাস্ত্রে উচ্চতর ডিগ্রী অর্জন করে হলেন ব্যারিস্টার। তিনি ২৫ মে ১৯৮৭ সালে কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী উপজেলার রৌমারী গ্রামে সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে পিতা মিজানুর রহমান (রঞ্জু) ও মাতা হাসনাবানু’র কোল আলোকিত করে নানার বাড়িতে জন্ম গ্রহণ করেন। তার পৈত্রিক নিবাস রৌমারী মহিলা কলেজ পাড়ায়।তিনি ব্যক্তিগত জীবনে বিবাহিত।এক পুত্র সন্তানের জননী। তাঁর স্বামী’র নাম রাফসান জানি খান টোনন,পেশায় একজন

চাকরিজীবি।

 

সস্প্রতি তিনি বার এট ‘ল’ (ব্যারিষ্টার) হওয়ার উদ্দেশ্যে ইংল্যান্ড বার স্ট্যান্ডার্ড বোর্ড এর অধীনে এবং বিপিপি ইউনিভার্সিটি অফ লন্ডন তত্ত্বাবধায়নে ব্রিটিশ ‘ল’র উপর পরীক্ষা দিয়ে কৃতিত্বের সাথে উত্তীর্ণ হন। তিনি ২০১৬ সালে বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সদস্য (অ্যাডভোকেট) এবং ২০১৮ সালে ইনকাম ট্যাক্স ‘ল’ ইয়ার হন। শিক্ষা জীবনে তিনি রৌমারী আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন, পরে রৌমারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক এবং রৌমারী মহিলা মহাবিদ্যালয় হতে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। পরবর্তীতে স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটি অফ বাংলাদেশ থেকে ‘ল’ ডিগ্রি (এলএলবি) এবং মাস্টার্স অফ ‘ল’ (এলএলএম) ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি কল টু দ্যা বার এর আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করার জন্য লন্ডনে অবস্থান করছেন।

 

ব্যারিস্টার মৌসুমী আক্তার এক সাক্ষাৎকারে বলেন, সমাজের অনেক অসহায় দরিদ্র ও নির্যাতিত মানুষ ন্যায় বিচার না পেয়ে নানান ধরনের হয়রানির শিকার হচ্ছেন সেই সব মানুষদের জন্য রৌমারীতে “ল” চেম্বারের মাধ্যমে আইনগতভাবে পরামর্শ দেওয়ার উদ্যোগ নিবো। যেখানে সাধারণ মানুষ বিনামুল্যে আইনগত পরামর্শ পাবেন। তিনি তাঁর ও পরিবারের জন্য সবার নিকট দোয়া ও সহযোগিতা চেয়েছেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *